জামালপুরে শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের মানববন্ধন

সম্পাদক-প্রকাশকঃ মারুফুর রহমান ফকির
মঙ্গল, 19.02.2019 - 03:30 PM
Share icon
Image
জামালপুর প্রতিনিধি॥ সারাদেশের ন্যায় জামালপুরেও মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছেন নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন জেলা শাখা। মঙ্গলবার সকালে পৌরসভার ফৌজদারী মোড়ে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন জামালপুর জেলা শাখার আয়োজনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন শেষে মৌন মিছিল নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অবস্থান নেয় নেতৃবৃন্দ। পরে তারা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রাজীব কুমার সরকারের কাছে স্মারকলিপি জমা দেন। নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন জেলা শাখার সভাপতি মো. শাহজাহান সিরাজের সভাপতিত্বে ও প্রভাষক মো. কামরুজ্জামানের সঞ্চালনায় ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোট জামালপুর জেলা শাখার সভাপতি অধ্যাপক নওশের আলী, সাধারণ সম্পাদক সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মসিউর রহমান, নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম কাজল, চরমাহমুদপুর দাখিল মাদ্রাসার সুপার সাইফুল ইসলাম ও জামালপুর পৌরসভার জেডি নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা হাসিনা বেগম প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিক্ষা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার জন্য স্বাধীনতার পর সর্বপ্রথম ৩৮ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। তারই ধারাবাহিকতায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেছেন। বক্তারা বলেন, শিক্ষকরা এমপিওভুক্তি করনের দাবিতে দীর্ঘদিন যাবত আন্দোলন সংগ্রাম করে আসছেন। গত ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ইং তারিখ থেকে টানা ১১দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার আন্দোলন সংগ্রামের কারনে গত ৫ জানুয়ারী ২০১৮ইং তারিখে শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসাইন ও প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের তৎকালীন একান্ত সচিব সাজ্জাদুল হাসান প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি করার আশ্বাস দিলেও তা আজও পর্যন্ত করা হয়নি। এ জন্য শিক্ষকরা হতাশ হয়ে আবারও বিভিন্ন কর্মসূচি দিতে বাধ্য হচ্ছে। বক্তারা আরও বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষকবান্ধব সরকার। তাই তিনি শিক্ষকদের কথা বিবেচনা করে আমাদের যৌক্তিক দাবি মেনে নিবেন। বক্তারা অবিলম্বে শিক্ষকদের এই দাবি মেনে নেওয়ার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
Share icon